ইউটিউবারদের সকল প্রয়োজনীয় প্রশ্নের উত্তর BD Youtube Community


ইউটিউবারদের প্রয়োজনীয় প্রশ্নের উত্তর

ইউটিউবারদের সকল প্রয়োজনীয় প্রশ্নের উত্তর…

 

আসসালামুআলাইকুম বন্ধুরা আশা করি সবাই ভাল আছেন। আজকে আমি আপনাদের ইউটিউবারদের সকল প্রয়োজনীয় প্রশ্নের উত্তর দিব। আপনাদের যত প্রশ্ন আছে ছোট-বড় সব প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যাবেন আজকের এই আর্টিকেলের ভিতরে। আপনি যদি একজন ইউটিউবার হয়ে থাকেন তাহলে এই আর্টিকেলটি মনোযোগ দিয়ে সম্পূর্ণ পড়ার জন্য অনুরোধ রইল। তাহলে চলুন শুরু করা যাক আজকের এই প্রশ্নের উত্তর পর্ব।

 

আমার নাম বিএম রাফি। বর্তমানে আমি প্রফেশনালি ডিজিটাল মার্কেটিং এর কাজ করি। এই কারণে ইউটিউব সম্পর্কে মোটামুটি ভালো ধারনা আছে আমার। আজকে আমি আমার নিজের অভিজ্ঞতা থেকে ইউটিউবারদের সকল প্রয়োজনীয় প্রশ্নের উত্তর দিব। বর্তমানে আমার সাথে বাংলাদেশ ও বাংলাদেশের বাইরের প্রায় 15 হাজারের বেশি ইউটিউবার কাজ করে। বর্তমানে আমার টিমে সাথে বাংলাদেশ ও বাংলাদেশের বাইরের 20 জন দক্ষ ইউটিউবার কাজ করে। আমার টিম ও আমি আমাদের অভিজ্ঞতা থেকে ইউটিউবারদের সকল প্রয়োজনীয় প্রশ্নের উত্তর দিব। আশা করি আপনি আপনার সব ধরনের প্রশ্নের উত্তর পেয়ে যাবেন। তাহলে চলুন বেশি কথা না বলে প্রশ্নও ও প্রশ্নের উত্তর গুলো ভালো করে দেখে নেওয়া যাক।


ইউটিউব মনিটাইজেশন প্রশ্নের উত্তর


চতুর্থ প্রশ্ন :- গুগোল বলছে আমার একটি এডসেন্স একাউন্ট আছে তাই আমি সেই এডসেন্স একাউন্ট ডিলেট করে দেয় কিন্তু আবার যখন আমি চেষ্টা করি এডসেন্স add করার জন্য এখন গুগোল বলে আমার এই জিমেলটি অন্য একটি ডিবাইসে add করা আছে আমি সেই সেটটি রিয়েষ্টার করি তার পরেও এটি যাচ্ছে না এখন কি করনিয় আমার।

 

এই সমস্যাটা তখনই দেখা দেয় যখন আপনি আপনার কম্পিউটার অথবা মোবাইল ডিভাইসের গুগল জিমেইল একাউন্ট ব্যবহার করে গুগল এডসেন্স এর জন্য আবেদন করেন অথবা গুগল এডসেন্স ব্যবহার করেন তখনই এই সমস্যাটা দেখা দেয়। এটা মূলত গুগলের নিয়ম একটা মানুষ একটা গুগল এডসেন্স একাউন্ট খুলতে পারবে ও একটা গুগল এডসেন্স একাউন্ট ব্যবহার করতে পারবে।

 

সমস্যার সমাধান তুলে ধরা হলো :- নতুন একটি মোবাইল অথবা কম্পিউটার ডিভাইস ব্যবহার করতে হবে পাশাপাশি নতুন একটি ইন্টারনেট সংযোগ ব্যবহার করে এপ্লাই করুন সবকিছু ঠিক হয়ে যাবে। পাশাপাশি আরেকটি কাজ করতে পারেন নতুন একটি জিমেইল একাউন্ট খুলে নতুন জিমেইলের সাহায্যে গুগল এডসেন্স এর জন্য অথবা মনিটাইজেশনের জন্য আবেদন করতে পারেন। আশা করি আর সমস্যা হবে না।


Rubel Hussain :- যে সকল ভিডিওতে ভিউ কম হয় সেই ভিডিওতে নাকি মনিটাইজেশন অন রাখলে চ্যানেলের মনিটাইজেশন চলে যায়? কথাটি কতটুকু সত্য? অভিজ্ঞ যারা আছেন বা যারা এই ব্যাপারে সঠিক তথ্য জানেন তাদের মূল্যবান মতামত আশা করছি। সঠিক প্রশ্নের উত্তর দিলে আমার অনেক উপকার হবে।

 

সমস্যার সমাধান তুলে ধরা হলো :- আপনার ভিডিওতে যদি একবারে ভিউ না আসে তারপরও আপনার চ্যানেলের মনিটাইজেশন বন্ধ হবে না। এটা মূলত সম্পূর্ণ ভুল ধারণা। আপনি যদি ইউটিউব এর নিয়ম অমান্য করেন তাহলে আপনার ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজেশন বন্ধ করে দেওয়া হবে। আপনি যদি ইউটিউব এর নিয়ম অমান্য না করেন তাহলে কখনই আপনার ইউটিউব চ্যানেলের মনিটাইজেশন বন্ধ করবে না।


Rubel Hussain :- আমার চ্যানেল ব্রান্ড একাউন্ট করা হয়নি। চ্যানেল এর নাম চেন্জ করলে জিমেইল একাউন্ট এর নাম চেন্জ হয়ে যায়। এর ফলে কি আমার গুগল এডসেন্স একাউন্ট খুলতে অথবা মনিটাইজেশন পেতে কি কোন সমস্যা হতে পারে? সঠিক প্রশ্নের উত্তর দিয়ে আমাকে সাহায্য করুন ধন্যবাদ সবাইকে।

 

সমস্যার সমাধান তুলে ধরা হলো :- এরফলে আপনার ইউটিউব চ্যানেলে অথবা মনিটাইজেশন পেতে অথবা গুগল এডসেন্স একাউন্টের কোন প্রকার সমস্যা হবে না। আমি মনে করি আপনার ইউটিউব চ্যানেলের একাউন্টটা কে এখনই ব্র্যান একাউন্ট করে নেওয়া ভালো আপনার জন্য।


দ্বিতীয় প্রশ্ন :- আপনি যখন আপনার ইউটিউব চ্যানেলকে মনিটাইজেশনের জন্য রিভিউতে পাঠাবেন তখন আপনার এই সকল সাবস্ক্রাইবারের গুলো অর্গানিক সাবস্ক্রাইবার না হওয়ার জন্য মনিটাইজেশন অন হবে না। তারমানে আপনার মনিটাইজেশন রিজেক্ট হয়ে যাবে। আরেকটা বিষয় আপনাকে মাথা রাখতে হবে আপনার ইউটিউব চ্যানেলের ভিডিও গুলো কখনোই ভাইরাল হবে না।

 

তৃতীয় ইউটিউব আপনার ভিডিওগুলো কে অর্গানিক ভাবে প্রমোট করা সম্পূর্ণরূপে বন্ধ করে দিবে। তারমানে আপনার চ্যালেনে আর কখনো অর্গানিক কোন প্রকার ভিউ আসবেনা।


SUB 4 SUB প্রশ্নের উত্তর


প্রশ্ন ১) আমার নিজের ইউটিউব চ্যানেলের ভিডিও যদি আমার মোবাইলের সাহায্যে অথবা আমার বন্ধুবান্ধব ও পরিবারের মোবাইলের সাহায্যে দেখি তাহলে কি কোন প্রকার ক্ষতি হবে আমার ইউটিউব চ্যানেলের।

 

সমস্যার সমাধান তুলে ধরা হলো :- আপনি যদি নিজের ভিডিও নিজের মোবাইল ও কম্পিউটারের সাহায্যে অথবা বন্ধুবান্ধব ও পরিবারের মোবাইল কম্পিউটারের সাহায্যে বারবার দেখেন তাহলে আপনার ভিডিওকে লো-কোয়ালিটির প্লেব্যাক আলতা রাখা হবে। সহজ বাংলা ভাষায় আপনার ভিডিওটিকে নিম্নমানের ভিডিও হিসেবে ধরা হবে। পাশাপাশি (ভিডিওর ভিউ থামিয়ে দেওয়া, চ্যানেল বাতিল করা হবে) ইউটিউব টিমের পক্ষ থেকে। এই বিষয়ে আরও বিস্তারিত জানার জন্য


প্রশ্ন ২) আমি যদি SUB 4 SUB করি তাহলে কি আমার চ্যালেনের কোন ক্ষতি হবে।

 

সমস্যার সমাধান তুলে ধরা হলো :- SUB 4 SUB যদি আপনি করেন তাহলে আপনার চ্যানেলে আপনি অনেক বড় ক্ষতি করে ফেলেছেন। আপনার চ্যানেলে কি কি ক্ষতি হতে পারে তা তুলে ধরা হলো। প্রথমত আপনার চ্যানেলকে ইউটিউব এর পক্ষ থেকে সাসপেন্ড করে দিতে পারে।

পঞ্চম প্রশ্ন :- একটা ইউটিউব চ্যানেল যদি বিভিন্ন ক্যাটাগরির ভিডিও আপলোড করি তাহলে কি কোন সমস্যা হবে অথবা মনিটাইজেশন পেতে কোন সমস্যা হবে।

 

সমস্যার সমাধান তুলে ধরা হলো :- আপনি আপনার ইউটিউব চ্যানেলে বিভিন্ন ক্যাটাগরির ভিডিও আপলোড করতে পারেন তাতে কোন প্রকার সমস্যা হবে না পাশাপাশি মনিটাইজেশন পেতেও কোন সমস্যা হবে না। আমি মনে করি একটা ইউটিউব চ্যানেলে একটা ক্যাটাগরির করে ভিডিও আপলোড করা ভালো।


ষষ্ঠ প্রশ্ন :- আমি আমার চ্যানেল নাম পরিবর্তন করছি কিন্তু নতুন নামে সার্চ দিলে আসেনা কিন্তু পুরান নামে সার্চ দিলে আসে এটা কি সমস্যা? এবং চ্যানেল নাম পরিবর্ত করলে মনিটাইজ এর কি কোনো সমস্যা হবে?

 

সমস্যার সমাধান তুলে ধরা হলো :- ইউটিউব চ্যানেলের নাম যেকোনো সময় পরিবর্তন করতে পারবেন তাতে মনিটাইজেশনএ কোন প্রকার সমস্যা হবে না। চ্যানেলের নাম পরিবর্তন করে নতুন চ্যানেল নাম রেংক করানোর জন্য দুই থেকে তিন মাসে মতন সময় লাগতে পারে। পাশাপাশি আপনাকে দুইটি কাজ করতে হবে। যেমন নিচে তুলে ধরা হলো।

 

নতুন করে চ্যানেল ডিসক্রিপশন লিখতে হবে 300 থেকে 400 ওয়ার্ড এর মটম পাশাপাশি ডিসক্রিপশন এ আপনার চ্যানেলের নাম দুই থেকে তিনবার উল্লেখ করতে হবে। নতুন করে আপনার চ্যানেল Tag ব্যবহার করতে হবে। তারপরে আপনাকে দুই থেকে তিন মাস সময় দিতে হবে তারপরে সবকিছু ঠিক হয়ে যাবে।


সপ্তম প্রশ্ন :- আমি কি আমার ইউটিউব চ্যালেনের এর ভিডিওগুলো অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়াতে আপলোড করতে পারব। যেমন :- ফেসবুক, টুইটার, ইনস্টাগ্রাম, ইত্যাদি। অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়াতে ভিডিও আপলোড করলে কি আমার চ্যালেনের অথবা আমার সোশ্যাল মিডিয়াতে কোন প্রকার সমস্যা হবে।

 

সমস্যার সমাধান তুলে ধরা হলো :- আপনি খুব সহজে আপনার ইউটিউবে চ্যালেনের ভিডিওগুলো অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়াতে আপলোড করতে পারবেন যেমন :- ফেসবুক, টুইটার, ইনস্টাগ্রাম, ইত্যাদি। অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়াতে ভিডিও আপলোড করলে কোন প্রকার সমস্যা হবে না যদি ভিডিওগুলো আপনার নিজের তৈরি করা হয় তাহলে।


৭ প্রশ্ন :- একটা জিমেইল একাউন্টের সাহায্যে আমি কয়টা ইউটিউব চ্যানেল খুলতে পারবো।

 

সমস্যার সমাধান তুলে ধরা হলো :- একটা জিমেইল একাউন্টের সাহায্যে আপনি খুব সহজেই অনেকগুলো ইউটিউব চ্যানেল খুলতে পারবেন তাতে কোন প্রকার সমস্যা হবে না। কিন্তু আমি মনে করি একটা জিমেইল একাউন্ট দিয়ে শুধুমাত্র একটা ইউটিউব চ্যানেল খোলা বুদ্ধিমানের কাজ।

 


© 2020 bdyoutubecommunity.com
error: Content is protected !!