ইউটিউব মনিটাইজেশন কি || মনিটাইজেশন সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা


ইউটিউব মনিটাইজেশন

ইউটিউব মনিটাইজেশন কি মনিটাইজেশন সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা

 

আসসালামুআলাইকুম বন্ধুরা আশা করি সবাই ভাল আছে। আজকে আমরা বিস্তারিত আলোচনা করব ইউটিউব মনিটাইজেশন সম্পর্কে। প্রত্যেকটা ইউটিউবারের মনিটাইজেশন সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা থাকা প্রয়োজন। কারণ প্রত্যেকটা ইউটিউবার মূলত ইউটিউব মনিটাইজেশন এর মাধ্যমে টাকা ইনকাম করে থাকে। এই কারণে ছোট-বড় সব ধরনের ইউটিউবারের ইউটিউব মনিটাইজেশন সম্পর্কে ভালো ধারণা থাকা প্রয়োজন। আপনি যদি ইউটিউব মনিটাইজেশন সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা পেতে চান অবশ্য এই পোস্টটি মনোযোগ দিয়ে সম্পূর্ণ পড়ুন। মনিটাইজেশন ও গুগল এডসেন্স সম্পর্কে আরো বিস্তারিত জানার জন্য আপনি চাইলে নিচে থাকা টিউটরিয়াল ভিডিওগুলো দেখতে পারেন। তাহলে চলুন বেশি কথা না বলে শুরু করা যাক।

 

মনিটাইজেশন হলো এমন একটি পক্রিয়া যার মাধ্যমে ইউটিউব চ্যানেলে বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করে একজন ইউটিউবার টাকা উপার্জন করতে পারে। ছোট-বড় সব ধরনের ইউটিউবার মনিটাইজেশন এর মাধ্যমে টাকা উপার্জন করে থাকে। ইউটিউব থেকে টাকা উপার্জন করা আরো অনেক পদ্ধতি আছে মনিটাইজেশন বাদে। যারা ছোট ইউটিউবে তারা শুধু মনিটাইজেশন মাধ্যমে শুরুতে টাকা উপার্জন করতে পারেন। ধীরে ধীরে যখন ইউটিউবে সাবস্ক্রাইবার বাড়ে তখন আরো অনেক টাকা উপার্জন করার পদ্ধতি বের হয়ে যায়। আরেকটা কথা বলে রাখি ইউটিউব চ্যানেল চালু করার সাথে সাথে কিন্তু মনিটাইজেশন দেওয়া হয় না। একটা ইউটিউব চ্যানেলের যখন ১২ মাসের ভিতরে ১০০০ সাবস্ক্রাইবার ও ৪০০০ ঘন্টা ওয়াচ টাইম পূর্ণ হবে তখন একটা ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজেশন চালু করে দেওয়া হয়। প্রথমে আবেদন করতে হবে মনিটাইজেশন এর জন্য যদি আপনার চ্যানেলে সব কিছু ঠিক থাকে তাহলে আপনার ইউটিউব চ্যানেলের মনিটাইজেশন চালু করে দেয়া হবে।

 

আপনাদের সুবিধার কথা মাথায় রেখে আমি আপনাদের জন্য নিচে একটি টিউটোরিয়াল ভিডিও শেয়ার করেছি। নিচে থাকা টিউটোরিয়াল ভিডিওতে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে মনিটাইজেশন সম্পর্কে ইউটিউব মনিটাইজেশন কি ইউটিউব মনিটাইজেশন কিভাবে কাজ করে। ভিডিওটি তৈরি করেছে বাংলাদেশের সবথেকে বড় ইউটিউবার সোহাগ ভাই। আশা করি ভিডিওটি আপনাদের কাছে অনেক অনেক বেশি ভালো লাগবে পাশাপাশি নতুন নতুন অনেক কিছু জানতে ও শিখতে পারবেন। তাহলে বেশি দেরি না করে এখনি নিচের ভিডিওটি মনোযোগ দিয়ে সম্পূর্ণ দেখুন।

 

 

ইউটিউব মনিটাইজেশন পলিসি ২০২১

 

সবার আগে আপনাকে একটা বিষয়ে ভালোভাবে জানতে হবে। আপনার ইউটিউব চ্যানেলের যদি আপনি মনিটাইজেশন অন করতে চান তাহলে ইউটিউব এর যত নিয়ম আছে সবগুলো নিয়ম আপনাকে মেনে চলতে হবে। আমি মনে করি ইউটিউবে সবথেকে বড় নিয়ম হলো কখনোই কোনো কিছু কপি পেস্ট করা যাবে না পাশাপাশি অন্য কোন সোশ্যাল মিডিয়ায় অথবা ইউটিউব থেকে কোনো কিছু কপি করে নিজের চ্যালেনে ব্যবহার করা যাবে না। এই নিয়মটি বাদে ইউটিউব এর আরো অনেকগুলো নিয়ম আছে সবগুলো নিয়মই আপনাকে মেনে চলতে হবে। পাশাপাশি ১৮+ ভিডিও বানানো যাবেনা।

 

ইউটিউব মনিটাইজেশন অন করার জন্য আপনার ইউটিউব চ্যানেলের মিনিমাম ৫ থেকে ১০ টায় বিডিও থাকতে হবে। পাশাপাশি ১২ মাসের ভিতরে আপনার ইউটিউব চ্যানেলে মিনিমাম ১ হাজার সাবস্ক্রাইবার থাকতে হবে পাশাপাশি ৪ হাজার ঘন্টা ওয়াচ টাইম থাকতে হবে। তাহলে আপনি ইউটিউব মনিটাইজেশন এর জন্য আবেদন করতে পারবেন। আপনি ইউটিউব চ্যানেলে যদি সব কিছু ঠিক থাকে তাহলে ৭ দিন অথবা ৩০ দিনের ভিতরে আপনার ইউটিউব চ্যানেলের মনিটাইজেশন অন করে দেওয়া হবে।

 

বাংলাদেশী ইউটিউবারদের কিছু ভুলের কারণে বেশিরভাগ বাংলাদেশী ইউটিউবার মনিটাইজেশন অন করতে পারে না। সব সময় আপনাকে ইউটিউব মনিটাইজেশন পলিসি মেনে চলতে হবে। কিছু ছোট-বড় ভুল আমি আপনাদের সামনে তুলে ধরছি আশাকরি এই ভুলগুলো আপনারা কখনো করবেন না। কখনো সাবস্ক্রাইবার অথবা ওয়াচ টাইম কিনবেন না কারণ মনিটাইজেশন অন করার জন্য অর্গানিক সাবস্ক্রাইবার ও ওয়াচ টাইম প্রয়োজন হয়। পাশাপাশি কখনোই কোন গ্রুপ মেম্বার মিলে অথবা নিজে বন্ধুবান্ধব ও আত্মীয়স্বজনের মোবাইল দিয়ে নিজেই ভিডিওটি দেখবেন না নিজের ইউটিউব চ্যানেলকে সাবস্ক্রাইব করবেন না। পাশাপাশি কোন ভিডিও ইমেজ অথবা অডিও কপি করে নিজের ভিডিওতে ব্যবহার করবেন না। এই ভুলগুলো যদি আপনি না করেন তাহলে আপনার খুব সহজেই ইউটিউব মনিটাইজেশন অন করতে পারবেন।

 

ইউটিউব এর টিম আপনার ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজেশন অন করার জন্য যে সকল বিষয় আপনার ইউটিউব চ্যানেলের চেক করবে তা তুলে ধরা হলো।

 

  • আপনার ইউটিউব চ্যানেলের ডিজাইন চেক করা হবে
  • সবথেকে বেশি দেখা ভিডিও গুলো ভালভাবে চ্যাট করা হবে
  • নতুন ভিডিও গুলো ভালভাবে চ্যাট করা হবে
  • আপনার ভিডিওর (মেটাডাটা) টাইটেল ট্যাগ ডিসক্রিপশন ভালোভাবে চেক করা হবে

 

ইউটিউব মনিটাইজেশন এপ্লাই করার আগে আপনার ইউটিউব চ্যানেল কিছু জিনিস ঠিক করা প্রয়োজন ও কিছু জিনিস আপনার জানা প্রয়োজন যেমন :- আপনি যদি কপিরাইট ফ্রি ভিডিও অথবা মিউজিক অথবা ইমেজ ব্যবহার করেন তাহলে আপনি মনিটাইজেশন পাবেন। কিন্তু আপনার সম্পূর্ণ ভিডিও জুড়ে যদি কপিরাইট ফ্রি ভিডিও অথবা মিউজিক অথবা ইমেজ থাকে অথবা আপনার ভিডিওতে যদি আপনার নিজের কোন কন্টেন না থাকে তাহলে কিন্তু আপনি মনিটাইজেশন পাবেন না আপনি। আপনার চ্যালেনের জলদি 18+ ভিডিও থাকে তাহলে আপনি মনিটাইজেশন পাবে না। আপনার ভিডিওতে যদি আপনি আপনার নিজের চেহারা না দেখাতে পারেন তাহলে কিন্তু তাহলে কিন্তু আপনার ইউটিউব চ্যানেলের মনিটাইজেশন হবে না। কয়েকটা

 

ইউটিউব মনিটাইজেশন এপ্লায় করার নিয়ম

 

কিভাবে খুব সহজে ইউটিউব মনিটাইজেশন এপ্লাই করবেন এই সম্পর্কে বিস্তারিত টিউটোরিয়াল নিচে দেওয়া আছে। নিচে থাকা টিউটোরিয়াল দেখি আপনি খুব সহজে মনিটাইজেশনের জন্য আবেদন করতে পারবেন। আপনি যাতে বিষয়টি আরো ভালোভাবে বুঝতে পারেন এই কারনে খুব ভালোভাবে দেওয়া আছে এখনি দেখে নিন।

 

প্রথম :- যদি আপনার ইউটিউব চ্যানেলের লাস্ট 12 মাসের ভিতরে 1000 সাবস্ক্রাইবার এবং 4000 ঘন্টা ওয়াচ টাইম কমপ্লিট হয় তাহলে আপনি ইউটিউব মনিটাইজেশন এর জন্য আবেদন করতে পারবেন।

 

দ্বিতীয় :- সবার প্রথমে যেকোন একটি ব্রাউজার ব্যবহার করে ইউটিউবে লগইন করতে হবে।

 

তৃতীয় :- ইউটিউব লগইন করার পরে আপনাকে ওপেন করতে হবে YouTube studio ।

 

চতুর্থ :- YouTube studio ওপেন করার পরে আপনাকে যেতে হবে Monetisation অপশনে।

 

পঞ্চম :- আপনার ইউটিউব চ্যানেলের যদি লাস্ট 12 মাসের ভিতরে 1000 সাবস্ক্রাইবার এবং 4000 ঘন্টা ওয়াচ টাইম কমপ্লিট হয় তাহলে তাহলে আপনি একটি APPLY NOW অপশন দেখতে পাবেন APPLY NOW অপশনে আপনাকে ক্লিক করতে হবে।

 

ছয় :- APPLY NOW অপশনে ক্লিক করার সাথে সাথে ইউটিউব মনিটাইজেশন অপশন গুলো তে চলে যাবেন। আপনার সামনে তিনটি ধাপ চলে আসবে তার মধ্যে দুইটি ধাপ আপনাকে চালু করতে হবে মহিলাদের জন্য।

 

নবম :- প্রথম ধাপে আপনাকে আপনার জিমেইল একাউন্টে সাহায্যের নতুন করে মনিটাইজেশন অপশনে লগইন করতে হবে। আপনি যে জিমেইল একাউন্টে সাহায্যে ইউটিউব চ্যানেল খুলেছেন আপনি চাইলে ওই জিমেইল একাউন্টে ব্যবহার করতে পারেন অথবা অন্য একটি জিমেইল একাউন্ট ব্যবহার করতে পারেন।

 

দশম :- দ্বিতীয় ধাপে আপনি আপনার মোবাইল নাম্বার ও ঠিকানা দিতে হবে এই ঠিকানাতে গুগল এডসেন্স আপনাকে চিঠি পাঠাবে পিন ভেরিফিকেশন করার জন্য। এই কারণে কোন প্রকার ভুল ঠিকানা দিবেন না। যদি ভুল ঠিকানা দেন তাহলে কিন্তু গুগল এডসেন্স এর চিঠি আসবে না আপনি পিন ভেরিফিকেশন করতে পারবেন না।

 

একাদশ :- তৃতীয় ধাপে আপনাকে কিছুই করতে হবে না আপনার ইউটিউব চ্যানেলে যদি সব কিছু ঠিক থাকে তাহলে ইউটিউব এর পক্ষ থেকেই তৃতীয় ধাবটি চালু করে দেওয়া হবে। তৃতীয় ধাবটি চালু হতে কয়েক দিন সময় লাগতে পারে চালু হওয়ার সাথে সাথে আপনার ইউটিউব চ্যানেল মনিটাইজেশন চালু হয়ে যাবে।


Related Post :- গুগল অ্যাডসেন্স 


উপরে দেখানো ভিডিও গুলো ফলো করে আপনি যদি আপনার ইউটিউব চ্যানেলের জন্য মনিটাইজেশন এর আবেদন করেন তাহলে খুব সহজে মনিটাইজেশন এপ্রুভ করতে পারবেন। এখনো যদি আপনার কোন প্রশ্ন থাকে গুগল এডসেন্স অথবা ইউটিউব মনিটাইজেশন সম্পর্কে অবশ্য নিচে কমেন্ট এর মাধ্যমে আমাদের টিমকে জানাবেন। আমাদের টিম আপনার প্রশ্নের উত্তর দিবে। এই পোস্টটি যদি আপনার কাছে ভাল লেগে থাকে অথবা এই পোস্টটি পড়ে আপনি যদি কোন উপকার পেয়ে থাকেন তাহলে আপনার মূল্যবান মতামত অবশ্যই নিচে কমেন্টে মাধ্যমে আমাদের কাছে শেয়ার করবেন। আপনি আপনার সকল ইউটিউবার বন্ধুদের কাছে এই পোস্টটি শেয়ার করবেন ধন্যবাদ।

 


Copyright © 2020-2021  bdyoutubecommunity.Com