ইউটিউব মনিটাইজেশন কি || মনিটাইজেশন সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা


ইউটিউব মনিটাইজেশন

ইউটিউব মনিটাইজেশন সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা

 

আসসালামুআলাইকুম বন্ধুরা আশা করি সবাই ভাল আছেন। আজকে আমরা বিস্তারিত আলোচনা করব ইউটিউব মনিটাইজেশন সম্পর্কে। প্রত্যেকটা ইউটিউবারের মনিটাইজেশন সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা থাকা প্রয়োজন। কারণ মনিটাইজেশন সম্পর্কে যদি বিস্তারিত ধারণা না থাকে তাহলে আমি মনে করি সেই ইউটিউবার কখনো মনিটাইজেশন এর মাধ্যমে টাকা উপার্জন করতে পারবেনা। এই কারণে ছোট-বড় সব ধরনের ইউটিউবারের ইউটিউব মনিটাইজেশন সম্পর্কে ভালো একটি ধারণা রাখা প্রয়োজন। আপনি যদি মনিটাইজেশন সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা পেতে চান অবশ্য এই পোস্টটি মনোযোগ দিয়ে সম্পূর্ণ পড়ুন। তাহলে চলুন বেশি কথা না বলে শুরু করা যাক।

 

মনিটাইজেশন হলো এমন একটি পক্রিয়া যার মাধ্যমে ইউটিউব চ্যানেলে বিজ্ঞাপন প্রদর্শন করে টাকা উপার্জন করে। ছোট-বড় সব ধরনের ইউটিউবার মনিটাইজেশন এর মাধ্যমে টাকা উপার্জন করে থাকে ইউটিউব থেকে। ইউটিউব থেকে টাকা উপার্জন করা আরো অনেক ভালো পদ্ধতি আছে মনিটাইজেশন বাদে। যারা ছোট ইউটিউবে তারা শুধু মনিটাইজেশন মাধ্যমে শুরুতে টাকা উপার্জন করতে পারেন। ধীরে ধীরে যখন ইউটিউবে সাবস্ক্রাইবার বাড়ে তখন আরো অনেক টাকা উপার্জন করার পদ্ধতি বের হয়ে যায়। আরেকটা কথা বলে রাখি ইউটিউব চ্যানেল চালু করার সাথে সাথে কিন্তু মনিটাইজেশন দেওয়া হয় না। একটা ইউটিউব চ্যানেলের যখন 1000 সাবস্ক্রাইবার 4000 ঘন্টা ওয়াচ টাইম পূর্ণ হবে তখন মনিটাইজেশন চালু করে দেওয়া হবে। প্রথমে আবেদন করতে হবে মনিটাইজেশন এর জন্য যদি আপনার চ্যানেলে সব কিছু ঠিক থাকে তাহলে আপনার ইউটিউব চ্যানেলের মনিটাইজেশন চালু করে দেয়া হবে।

 

আপনি যদি ইউটিউব মনিটাইজেশন সম্পর্কে বিস্তারিত ধারনা পেতে চান তাহলে নিচের ভিডিওটি মনোযোগ দিয়ে সম্পূর্ণ দেখুন তাহলে ইউটিউব মনিটাইজেশন সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা পেয়ে যাবেন। ভিডিওটি যদি আপনার কাছে ভাল লেগে থাকে অবশ্যই নিচে কমেন্টে মাধ্যমে আপনার মূল্যবান মতামত জানাবেন। তাহলে বেশি দেরি না করে এখনি নিচের ভিডিওটি মনোযোগ দিয়ে সম্পূর্ণ দেখুন।

 

 

মনিটাইজেশন সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা

 

আপনার ইউটিউব চ্যানেলের যদি 12 মাসের ভিতরে 1000 সাবস্ক্রাইবার ও 4000 ঘন্টা ওয়াচ টাইম পূর্ণ হবে তাহলে আপনি মনিটাইজেশনের জন্য আবেদন করতে পারবেন। আপনার ইউটিউব চ্যানেলের যদি সব কিছু ঠিক থাকলে তাহলে আপনার চ্যালেনের মনিটাইজেশন অ্যাপ্রুভ করে দেওয়া হবে। যখন আপনি মনিটাইজেশন এর জন্য আবেদন করবেন তখন আপনার ইউটিউব চ্যানেলের জন্য একটি গুগল এডসেন্স একাউন্ট খোলা হয়ে যাবে। ইউটিউবে মাধ্যমে যে ইনকাম করবেন ইনকামটা মূলত গুগল এডসেন্সের ভিতরে দেখতে পাবেন।

 

আশাকরি মনিটাইজেশন কি কিভাবে কাজ করে এই সম্পর্কে বিস্তারিত একটি ধারণা পেয়ে গেছেন। একটা কথা আপনাকে মাথা রাখতে হবে ইউটিউব চ্যানেল খোলার সাথে সাথে কিন্তু আপনি মনিটাইজেশন পাবেন না। আপনার ইউটিউব চ্যানেলের যখন 12 মাসের ভিতরে 1000 সাবস্ক্রাইবার 4000 ঘন্টা ওয়াচ টাইম পূর্ণ হবে তখন আপনি মনিটাইজেশন এর জন্য আবেদন করতে পারবেন। আপনার ইউটিউব চ্যানেলের যদি সব কিছু ঠিক থাকে তাহলে আপনি মনিটাইজেশন পেয়ে যাবেন। মনিটাইজেশন চালু করার পর থেকে আপনি গুগল এডসেন্সের মাধ্যমে টাকা উপার্জন করতে পারবেন।


Related Post :- গুগল অ্যাডসেন্স 


ইউটিউব মনিটাইজেশন এপ্লাই করার আগে কিছু জিনিস সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা থাকা প্রয়োজন যেমন :- আপনি যদি অন্যের ভিডিও কপি করে নিজের ভিডিওতে ব্যবহার করেন তাহলে আপনি মনিটাইজেশন পাবেন না। আপনি যদি কপিরাইট ফ্রি ভিডিও ব্যবহার করেন তাহলে মনিটাইজেশন পাবে। আপনার চ্যালেনের জলদি 18+ ভিডিও থাকে তাহলে আপনি মনিটাইজেশন পাবে না। আপনি যদি স্লাইডশো অথবা ইমেইল দিয়ে ভিডিও তৈরি করেন তাহলে মনিটাইজেশন পাবেন না। আপনার ভিডিওতে আপনি যদি নিজের ভয়েস অথবা নিজের ফেস না দেখাতে পারেন তাহলে মনিটাইজেশন পাবেন না। নিজের আসল ভয়েস অথবা নিজের আসল ফেস দুইটার মধ্যে একটা আপনার ভিডিওতে ব্যবহার করতে হবে না ব্যবহার করলে মডারেশন পাবেন না।

 

উপরে দেখানো ভিডিও গুলো ফলো করে আপনি যদি আপনার ইউটিউব চ্যানেলের জন্য মনিটাইজেশন এর আবেদন করেন তাহলে খুব সহজে মনিটাইজেশন এপ্রুভ করতে পারবেন। এখনো যদি আপনার কোন প্রশ্ন থাকে গুগল এডসেন্স অথবা ইউটিউব মনিটাইজেশন সম্পর্কে অবশ্য নিচে কমেন্ট এর মাধ্যমে আমাদের টিমকে জানাবেন। আমাদের টিম আপনার প্রশ্নের উত্তর দিবে। এই পোস্টটি যদি আপনার কাছে ভাল লেগে থাকে অথবা এই পোস্টটি পড়ে আপনি যদি কোন উপকার পেয়ে থাকেন তাহলে আপনার মূল্যবান মতামত অবশ্যই নিচে কমেন্টে মাধ্যমে আমাদের কাছে শেয়ার করবেন। আপনি আপনার সকল ইউটিউবার বন্ধুদের কাছে এই পোস্টটি শেয়ার করবেন ধন্যবাদ।

 


© 2020 bdyoutubecommunity.com
error: Content is protected !!