ইউটিউব ভিডিও বুস্ট করে অথবা টাকা দিয়ে কি মনিটাইজেশন পাওয়া যায়?


ইউটিউব ভিডিও বুস্ট

ইউটিউব ভিডিও বুস্ট করে অথবা টাকা দিয়ে কি মনিটাইজেশন পাওয়া যায়?

 

আসসালামুআলাইকুম বন্ধুরা আশা করি সবাই ভালো আছেন। আজকে আমরা বিস্তারিত আলোচনা করব ইউটিউব ভিডিও বুস্ট করে কি মনিটাইজেশন পাওয়া যায় অথবা মনিটাইজেশন কি টাকা দিয়ে কিনে নেওয়া যায়। এই বিষয়টা নিয়ে অনেকের মনে অনেক ধরনের প্রশ্ন থাকে আজকে আমি আপনাদের সকল প্রশ্নের উত্তর দিব। পাশাপাশি ইউটিউব ভিডিও বুস্ট সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করব। এখন অনেকে আমাকে প্রশ্ন করতে পারেন আসলেই কি সত্যি ভিডিও বুস্ট করে মনিটাইজেশন পাওয়া যায়, উত্তর হল পাওয়া যায়, আবার পাওয়া যায় না। আপনি যদি ইউটিউব ভিডিও বুস্ট সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে চান তাহলে এখনি আজকের এই আর্টিকেলটি মনোযোগ দিয়ে সম্পূর্ণ দেখুন অথবা নিচে থাকা সোহাগ ভাইয়ের ভিডিওটি মনোযোগ দিয়ে সম্পূর্ণ দেখুন তাহলে বুঝতে পারবেন।

 

ইউটিউব ভিডিও বুস্ট সম্পর্কে আপনি যদি বিস্তারিত জানতে চান তাহলে এখনি নিচে থাকা সোহাগ ভাইয়ের ভিডিও মনোযোগ দিয়ে সম্পূর্ণ দেখুন। নিচের সোহাগ ভাইয়ের ভিডিওতে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে যে আসলে কি ইউটিউব ভিডিও বুস্ট করে মনিটাইজেশন পাওয়া যায় যদি পাওয়া যায় সেটা কিভাবে। তাহলে এখনি দেরি না করে নিচের ভিডিওটি মনোযোগ দিয়ে সম্পূর্ণ দেখুন। পাশাপাশি সোহাগ ভাইয়ের ভিডিওটি আপনার কাছে কীরকম লেগেছে নিচে কমেন্ট এর মাধ্যমে আমাকে। আশা করি ভিডিওটি আপনার কাছে ভালো লাগবে যদি ভালো লেগে থাকে অবশ্যই আপনি আপনার সকল বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করবেন।

 

 

ইউটিউব ভিডিও বুস্ট করে মনিটাইজেশন পাওয়া যায়, আবার মনিটাইজেশন পাওয়া যায় না কেন এ সম্পর্কে বিস্তারিত তুলে ধরা হলো। মনিটাইজেশন পাওয়া যাবে না কেন এই সম্পর্কে আগে আমরা জেনে নেই। ইউটিউব এর যে পার্টনারশিপ প্রোগ্রামের FAQ তে লেখা আছে যে কোন কোন ওয়াচ টাইম গুলো মনিটাইজেশনের জন্য যুক্ত করা হবে না অথবা মনিটাইজেশনের জন্য গ্রহণযোগ্য হবে না। যেমন :- private videos. Unlisted videos. Deleted videos. Ad campaigns.   story and short video

 

১. আপনি যদি কোন ভিডিওকে প্রাইভেট করে দেন অথবা এনলিস্ট অথবা ভিডিওটি কে ডিলিট করে দেন ওই ভিডিওর ওয়াচ টাইম মনিটাইজেশনের জন্য গ্রহণযোগ্য হবে না। ওই ভিডিও ওয়াচ টাইম যদি মনিটাইজেশনের জন্য নেওয়া হয়ে থাকে তাহলে ওই ওয়াচ টাইম গুলো (-) করে দেওয়া হবে পরবর্তী সময়।


Related Post :- ইউটিউব ভিডিও ভাইরাল 


২. ইউটিউব ভিডিও বুস্ট করে যে ওয়াচ টাইম গুলো পাবেন ওই ওয়াচ টাইম গুলো মনিটাইজেশনের জন্য কাউন্ট করা হবে না। যাদের চ্যালেনের মনিটাইজেশন এখনো হয়নি মনিটাইজেশন অপশন এ গেলে গাড়ির মিটারের মতো একটি ক্লক দেখান ওই ক্লক এ মূলত মনিটাইজেশন জন্য কত ঘন্টা ওয়াচ টাইম হয়েছে এটা দেখানো হয়। আপনি যদি ইউটিউব ভিডিও বুস্ট করে যে ওয়াচ টাইম সংগ্রহ করেন ওই ওয়াচ টাইম গুলো মনিটাইজেশন অপশন এ যে গাড়ির মিটারের মতো একটি ক্লক আপনার ওয়াচ টাইম গুলো সংগ্রহ করা হবে না অথবা যুক্ত করা হবে না। একবারে যদি সহজ ভাষায় বলি ইউটিউব ভিডিও বুস্ট করে ওয়াচ টাইম গুলো সংগ্রহ করেছেন ওই ওয়াচ টাইম গুলো ইউটিউব অ্যানালাইটিকসের দেখাবে কিন্তু মনিটাইজেশন অপশনে দেখাবেনা। তারমানে বুস্ট করে যে ওয়াচ টাইম গুলো সংগ্রহ করবেন ওই ওয়াচ টাইম গুলো মনিটাইজেশনের জন্য গ্রহণযোগ্য অথবা যুক্ত করা হবে না।

 

৩. ইউটিউব এর স্টোরি ভিডিও ও শর্ট ভিডিও থেকে যে ওয়াচ টাইম গুলো পাবেন ওই ওয়াচ টাইম গুলো মনিটাইজেশনের জন্য গ্রহণযোগ্য হবে না। private videos. Unlisted videos. Deleted videos. Ad campaigns.   story and short video এই ওয়াচ টাইম গুলো হচ্ছে ইনবাইট পাবলিক ওয়াচ টাইম। আশা করি কিছুটা হলেও ধারণা পেয়েছেন বাকি বিস্তারিত আলোচনা নিচে দেওয়া আছে।

 

আশা করি তাহলে কিছুটা হলেও বুঝেছেন যে বুস্ট করে মনিটাইজেশন পাওয়া যাবে না। কিন্তু ইউটিউব ভিডিও বুস্ট করে যে সাবস্ক্রাইবার গুলো পাবেন ওই সাবস্ক্রাইব গুলো মনিটাইজেশন এর জন্য যে 1000 সাবস্ক্রাইবার প্রয়োজন ওই 1000 সাবস্ক্রাইবার একাউন্ট করা হবে। কারণ ইউটিউব ভিডিও বুস্ট করে সাবস্ক্রাইবার বাড়ানোর যায় না। যদি আপনার ভিডিওটা ইউজারের কাছে ভালো লাগে তাহলে ইউজার সাবস্ক্রাইব করে। 1000 সাবস্ক্রাইবার বুস্ট করে আনতে পারবেন। বুস্ট করে যদি 4000 ঘন্টা ওয়াচ টাইম আনতে পারেন কিন্তু ওই ওয়াচ টাইম গুলো মনিটাইজেশনের জন্য কাউন্ট করা হবে না অথবা যুক্ত করা হবে না। আশা করি বিষয়টা কিছুটা হলেও বুঝেছেন।

 

ইউটিউব ভিডিও বুস্ট করে মনিটাইজেশন

 

ইউটিউব ভিডিও বুস্ট করে মনিটাইজেশন এনাবেল করার নিয়ম। আপনি যদি আপনার ইউটিউব ভিডিও ফেইসবুকে অথবা অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়াতে বুস্ট করে 1000 সাবস্ক্রাইব ও 4000 ঘন্টা ওয়াচ টাইম যদি আনতে পারেন ওই ওয়াচ টাইম ও সাবস্ক্রাইবার গুলোর মনিটাইজেশন এর জন্য কাউন্ট করা হবে। তারমানে ইউটিউব ভিডিও যদি ফেসবুকে বুস্ট করেন তাহলে আপনি খুব সহজে মনিটাইজেশন এনাবেল করতে পারবেন। কিন্তু একটা বিষয় খেয়াল রাখবেন আপনি ইউটিউব এর ভিডিও ফেসবুকে শেয়ার করে যদি বুস্ট করেন আমি সিওর বেশির ভাগ মানুষ ফেসবুক থেকে ইউটিউব এসে আপনার ভিডিও দেখবে না। যদি আপনার ভিডিও টাইটেল থাম্মেল অনেক বেশি ইন্টারেস্টিং হয় তাহলে হয়তো বেশিরভাগ মানুষ আপনার ফেসবুক থেকে ইউটিউবে গিয়ে আপনার ভিডিওটি দেখবেন। কিন্তু বেশিরভাগ ক্ষেত্রে আসবেনা এরফলে মনিটাইজেশন এনাবেল করার জন্য আপনাকে প্রচুর পরিমাণে ইউটিউব ভিডিও বুস্ট করতে হবে।

 

আরেকটা বুদ্ধি আছে আপনি খুব সহজেই ইউটিউবে ভিডিও ইউটিউব ভিডিও বুস্ট করে মনিটাইজেশন এনাবেল করতে পারবেন। আপনি যখন ইউটিউবে একটা ভিডিও বুস্ট করবেন ওই ভিডিওটা যদি ইউজার কাছে অনেক বেশি ভালো লাগে তাহলে ওই ইউজার কিন্তু আপনার ইউটিউব চালানোর অন্যান্য ভিডিওগুলো দেখবে। যদি আপনার ইউটিউব চ্যানেলের অন্যান্য ভিডিও দেখে তাহলে ওই ভিডিওগুলো থেকে যে ওয়াচ টাইম গুলো পাবেন ওই ওয়াচ টাইম গুলো সংগ্রহ করা হবে মনিটাইজেশনের জন্য। আপনি একটা ভিডিও বুস্ট করলেন একজন মানুষ আপনার ইউটিউব চ্যানেলে আসলো আসা পরে আপনার চ্যালেনের একটা ভিডিও দেখার পরে যদি ভিডিওটি ভাল লাগে সেই ভিজিটর কিন্তু আরো অনেকগুলো ভিডিও দেখবে। সেই ভিজিটর টা যদি অন্য কোনো ভিডিও দেখে ওই ভিডিওগু যে ওয়াচ টাইম গুলো পাবেন ওয়াচ টাইম গুলো আপনার মনিটাইজেশনের জন্য কাউন্ট করা। একটা বিষয় মাথায় রাখবেন আপনার ভিডিও যদি ভাল না হয় আপনার থাম্মেল টাইটেল যদি ভালো না হয় আমি কিন্তু আরেকটা ভিডিও দেখার জন্য আপনার চ্যানেলে কখন ঢুকবে না। আপনার ভিডিও কোয়ালিটি যদি না থাকে তাহলে ভিডিও বুস্ট করে কোন লাভ পাবেন না।

 

আমার ব্যক্তিগত মতামত ইউটিউব ভিডিও বুস্ট সম্পর্কে

 

আসলে বুস্ট করে মনিটাইজেশন এনাবেল করাটা ঠিক না যারাই করবেন তারা পরবর্তী সময়ে পস্তাবেন। অনেকে হয়তো বুস্ট করে মনিটাইজেশন এনাবেল করেছেন আপনি যদি করে থাকেন আপনার মতামত নিচে কমেন্টের মাধ্যমে আমাদেরকে শেয়ার করবেন। প্রথম সমস্যা হলো প্রচুর পরিমাণে টাকা প্রয়োজন বুস্ট করে মনিটাইজেশন এনাবেল করার জন্য। আপনার ভিডিও কোয়ালিটি অবশ্যই ভালো করতে হবে বুস্ট করার আগে যদি আপনার ভিডিও কোয়ালিটি ভালো করতে পারেন অথবা ভাল থাকে তাহলে আমি মনে করি বুস্ট করার কোন প্রয়োজনই নেই। আপনার ভিডিও কোয়ালিটি যদি অনেক বেশি ভালো হয় তাহলে অবশ্যই আপনার ভিডিওতে ভিউ হবে। যদি আপনার ভিডিও কোয়ালিটি ভালো না হয় আপনি যতই বুস্ট করুন না কেন আপনি মনিটাইজেশন এনাবেল করতে পারবেন না। আমি মনে করি যে টাকাটা বুস্ট করার জন্য রেখেছেন ওই টাকা দিয়ে আপনি ভিডিও এডিটিং অথবা অডিও এডিটিং শিখতে পারেন অথবা ভালো মানের কম্পিউটার অথবা ইউটিউব গেজেট কিনতে পারেন যে গ্যাজেটগুলো সাহায্যে আপনার ভিডিও আরও অনেক বেশি ভালো হবে। আপনি যদি ভিডিও কোয়ালিটি আরো ভালো করার পিছনে টাকা খরচ করেন এই টাকাটা ভবিষ্যতে আপনার অনেক বেশি কাজে লাগবে ইউটিউব ক্যারিয়ারে ক্ষেত্রে।

 

আমি আপনাকে একটা উদাহরণ দিচ্ছি আশা করি বিষয়টা ভালোভাবে বুঝতে পারবেন। ‘ড়াবেন প্রতিযোগিতার উদ্দেশ্য হলো আপনাকে 10 কিলোমিটার দৌড়াতে হবে। 10 কিলোমিটার দৌড়াতে পারলে আপনাকে বিশাল বড় একটি উপহার অথবা প্রাইজ দেওয়া হবে। কিন্তু এই দৌড় প্রতিযোগিতার একটি পূর্ব শর্ত আগে আপনাকে কোন প্রকার টাকা ছাড়া কোন প্রকার পেমেন্ট ছাড়া এক কিলোমিটার দৌড়াতে হবে। এখন আপনি বলতে পারেন আমি তো অলস আমি এক কিলোমিটার রাস্তা ধরাবো না। আমি কি করবো আমি সাইকেলে চড়ে যাব অথবা মোটরসাইকেলে করে অথবা কারো কাঁধে উঠে আমি এক কিলোমিটার দৌড়াবো তাহলেই তো দৌড় প্রতিযোগিতা প্রথম সত্যটা পূরণ হয়ে যাবে। এরপরে যে 10 কিলোমিটার আছে ওই 10 কিলোমিটার আমি নিজে দৌড়াবো।

 

ভাই এখন এই প্রশ্নের উত্তর টা দেন আপনি যদি প্রথম এক কিলোমিটার দৌড়াতে আল-সামি লাগে অথবা অলসতা লাগে তাহলে বাকি 10 কিলোমিটার কিভাবে দৌড়াবেন। ওই 10 কিলোমিটার তো আপনি সাইকেলে করে যেতে পারবেনা মোটরসাইকেলে করে যেতে পারবে না। এই জায়গায় মূলত প্রথম এক কিলোমিটার দিয়ে আপনাকে পরীক্ষা করছে আপনি 10 কিলোমিটার দৌড়াতে পারবেন কিনা আপনার যোগ্যতা আছে কিনা। প্রথম এক কিলোমিটার যদি অলসতা করেন অথবা কোন ভাবে বাইপাস করেন বাকি 10 কিলোমিটার কিভাবে দৌড়াবেন সেটা নিজেকে নিজেই প্রশ্ন করুন উত্তর পেয়ে যাবেন। এই বিষয়টা যদি আপনি ইউটিউব এর সাথে তুলনা করেন যেমন আপনি যদি নিজের যোগ্যতা দিয়ে 1000 সাবস্ক্রাইবার ও 4000 ঘন্টা ওয়াচ টাইম না পারেন তাহলে আপনি কিভাবে লক্ষ লক্ষ সাবস্ক্রাইবার অর্জন করবেন আর কিভাবে হাজার হাজার ঘন্টা ওয়াচ টাইম সংগ্রহ করবেন আপনি যদি হাজার হাজার লক্ষ লক্ষ ঘন্টা ওয়াচ টাইম না আনতে পারেন তাহলে কিন্তু আপনার ইনকাম হবে না এ বিষয়টা মাথায় রাখবেন। আমাদের দেশের সিবিসি অবস্থা অনেক খারাপ এরফলে 100 ডলার ইনকাম করার জন্য আপনার লক্ষ্য লক্ষ্য লক্ষ লক্ষ ঘন্টা ওয়াচ টাইম প্রয়োজন হবে। আশা করি আমি আপনাকে এ বিষয়ে কিছুটা হলেও বুঝাতে পেরেছি।

 

আশা করি ইউটিউব ভিডিও বুস্ট সম্পর্কে বিস্তারিত একটা ধারণা পেয়েছেন নতুন কিছু জানতে ও শিখতে পেরেছেন। এখনো যদি ইউটিউব ভিডিও বুস্ট সম্পর্কে আপনার কোন প্রশ্ন থাকে অবশ্য নিচে কমেন্টের মাধ্যমে আমাকে জানাবেন। পাশাপাশি ইউটিউব সম্পর্কে আপনার যদি কোন প্রশ্ন থাকে অবশ্যই নিচে কমেন্টে মাধ্যমে আমাকে জানাবেন আমি আপনার সকল প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করব ধন্যবাদ। আশা করি আজকের এই আর্টিকেলটি আপনার কাছে অনেক বেশি ভালো লেগেছে যদি ভালো লেগে থাকে অবশ্যই আপনার সকল ইউটিউবার বন্ধুদের মাঝে শেয়ার করবেন। আপনার মূল্যবান সময় নষ্ট করে আজকের এই আর্টিকেলটি পড়ার জন্য আপনাকে অসংখ্য ধন্যবাদ।

 


Copyright © 2020-2021  bdyoutubecommunity.Com